গন্তব্য সন্নিকটে

তুমি দেখেছ কি রাতের আকাশ?
সুগন্ধ মিশ্রত বসন্তের বাতাস
করেছ কি কখনো অনুভব?

তুমি দেখেছ কি ভোরের আলো?
কিছু সমুদ্রগভীর চোখ যেগুলো
দেখতে ছিল সর্বোচ্চ স্তরের কালো?

তুমি শুনেছ কি পাখির কিচিরমিচির
নদীর অক্লান্ত শব্দ কল্-কল্?
কিছু হাসি যার শব্দ ছিল ঝলমল।

তুমি শুননি কি কোন ইশারার কথা?
অনুভব করনি কি কখনো
গরীব দুঃখী মানুষের ব্যথা?

ছোট শিশুদের তুমি পারনি
কি কখনো হাসাতে?
কখনো কি হওনি খুশি মেহমান
তুমার বাড়িতে আসাতে?

দুঃখ পেয়ে কখনো কি কেঁদেছ?
আনন্দে কি কখনো হেসেছ
মন থেকে দিয়েছ কি অট্টহাসি?

হয়েছ কি কখনো অসুস্থ?
দেখেছ কি কতোটা ভালো লাগে
হয়েছ যখন সুস্থ?

কখনো করেছ কি রাগ
পাওনি বলে তোমার ভাগ?
ভাঙিয়েছ কারো রাগ কখনো?
যার কথা মনে আছে এখনো।

করেছ কি ভুল, চেয়েছ কি ক্ষমা?
পেয়েছ কি মাফ?

হেঁটেছ কি পায়ে, পথ তুমি মোড়েছ কি
কখনো ডায়ে-বায়ে?
রাস্তা মেপেছ কি কখনো পা দিয়ে?

কখনো খেয়েছ কি কোন সুস্বাদু খাদ্য
গেয়েছ কি গান ছাড়া কোন বাদ্য?

কখনো কিছুর অভাব করেছ অনুভব?
শুকরিয়া কি করেছ আদায় তোমার
সৃষ্টিকর্তার যতটুকু হয়েছে সম্ভব?

কখনো কি ফোটাতে পেরেছ
হাসি কারো মুখে?
দাঁড়াতে পেরেছ কি তুমি
কারো দুখে?

ভিজেছ কি কখনো বৃষ্টিতে?
করেছো কি প্রশংসা কখনো
স্রষ্টার এতো সুন্দর সৃষ্টিতে?

তবে তুমি আর কি চাও
এই পৃথিবী থেকে?
যা কিছু দেখার ছিল
সব তুমি ফেলেছ তো দেখে।